মানবসভ্যতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ১৮ টি ‘ভুল করে আবিষ্কার’

বিজ্ঞানের যে কোন আবিষ্কারের কিছু তরিকা আছে।

গবেষণাগারে বসে দীর্ঘদিনের নিরলস সাধনার মাধ্যমে সিস্টেমেটিক এক্সপেরিমেন্টের ফলাফল ধারাবাহিক পর্যবেক্ষণ করে নানারকম জার্নাল টার্নালে পাবলিকেশন করার পরে বলা তাকে আবিষ্কার বলা যায়- এটা আমরা সবাই জানি।

কিন্তু সব আবিষ্কারই কি এভাবে তরিকা মেনে হয়?

না।

কিছু কিছু আবিষ্কার ভুল করে হয়ে যায়। এক্সিডেন্টালি হয়ে যায়।

অমানবসভ্যতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ এরকম ১৮ টি ‘ভুল করে আবিষ্কার’ হলো- –

১. পেনিসিলিন

২. মাইক্রোওয়েভ

৩. কুইনিন

৪.এক্স-রে

৫. রেডিও-এক্টিভিটি

৬. ভেলক্রো ( এত গুরুত্বপূর্ন জিনিস এইটা, জানতাম না)
৭. সুইটেনার

৮. পেসমেকার

৯. এলএসডি

১০. প্লে-ডোহ (এইটা কীভাবে গুরুত্বপূর্ন হলো, আমি শিওর না)

১১. ইনসুলিন

১২. ভলকানাইজড রাবার

১৩. কর্ন ফ্লেক্স(অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন, হুমঅম ;-))

১৪. টেফলন

১৫. সুপার গ্লু

১৬. উইন্ডশিল্ড এর সেফটি গ্লাস

১৭. ভ্যাজলিন,
এবং

১৮. ভায়াগ্রা ( 😉 আহ, মানব সভ্যতার জন্য কী উপকারী এক্সিডেন্টই না ছিলো এটা।)

ভাবসাবে মনে হচ্ছে, ১৯ নাম্বার এক্সিডেন্ট টা বাংলাদেশেই ঘটতে যাচ্ছে- এবং সেটা হ

পুনশ্চঃ যারা যারা উপরের ১৮ টা ‘ভুল করে আবিষ্কার’ নিয়ে বিস্তারিত জানতে চান তাদের জন্য লিংক। পড়ে দেখতে পারেন। মজা পাবেন।

– জোবায়েদ আহসান

Invest in Social

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *