করোনা বলদদের গল্প – ৩: ভারতের মন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল

ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল এর করোনা ধরা পড়েছে গতকাল শনিবার, ৮ই আগস্ট।

বিস্ময়কর ব্যাপার হল, এই মন্ত্রী গত ২৪শে জুলাই ‘ভাবীজি পাপড়’ নামের নতুন একটি পাপড়ের ব্রান্ড উদ্বোধন করে বলেছিলেন, এই পাপড় খেলে কারো করোনা হবেনা ।

মন্ত্রী নিজেই সম্ভবত ভাবীজি পাপড় খাননি। এই কারনে তার করোনা টেস্টে পজিটিভ রেজাল্ট এসেছে।

জনৈক সুনীল বানশালির কোম্পানি বানিয়েছিল এই ভাবীজি পাপড় । নামটাই কিছুটা আপত্তিকর। এই নামের বিভিন্ন রকম শ্লীল- অশ্লীল অর্থও করা যায়, এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় সেগুলো নিয়ে অনেক আলোচনাও চলছে।

ভাবীজি পাপড়ের প্রমোশনাল ভিডিওতে মন্ত্রী দাবি করেছিলেন, এই পাপড়ের মধ্যে এমন এমন সব উপকরন রয়েছে, যেগুলা মানব শরীরে করোনার বিরুদ্ধে এন্টিবডি তৈরি করবে।

তাই এই পাপড় খাইলে আর করোনা ভাইরাস আক্রমন করতে পারবে না।

পাপড়ের উপকরন গুলা অবশ্য খুবই সিম্পল । হলুদ, কালো মরিচ, কালোজিরা, তুলসী পাতা, হিং , মুগ ডাল, উড়াল ডাল এবং লবণ ।

এইগুলা দিয়েই যদি করোনার এন্টিবডি বানানো যায়, তাইলে বানশালীর কোম্পানি সেই ওষুধ বানাচ্ছে না কেন ?

পাপড়ের মধ্যে হুদাই এমন দামী জীবন রক্ষাকারী ওষুধ ফ্রি দিয়ে দিচ্ছে কেন !!!

অক্সফোর্ড, সিনোভ্যাক কিংবা মডার্নার গবেষকদের কথা বাদ দেন, মাঝারি সাইজের কোনো বিজ্ঞানীও কখনো বলেনি যে এইসব ভেষজ উদ্ভিদের মধ্যে করোনা প্রতিরোধী উপাদান আছে।

সেখানে অর্জুন রাম মেঘ ওয়াল ( মাস্টার্স ইন পলিটিকাল সায়েন্স, ব্যাচেলর ইন ল ) এত বড় আবিষ্কার করে ফেললেন !!!!

যাই হোক, সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ভাবীজি তার ক্ষমতা দেখিয়ে দিলেন । নিজের প্রধান ব্রান্ড এ্যাম্বাসাডরকেই করোনা ভাইরাস থেকে ঠ্যাকাতে পারলেন না। এই কোম্পানির ফিউচার ব্যবসা পুরাই বন্ধ 🙂

মাননীয় মন্ত্রী , করোনা পজিটিভ হওয়ার পরে এখন ”আপনার অনুভূতি কি?”

রেফারেন্স-

নয়াদিগন্ত

এনডিটিভি

উইকিপিডিয়া

পড়ুনঃ

Invest in Social

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *